হাদীসে বর্ণিত দুআ সমূহ

হাদীসে বর্ণিত দুআ সমূহ

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ।

কুরআন-সুন্নাহ থকেে নর্বিাচন করে ব্যাপক র্অথ বোধক এবং একান্ত প্রয়োজনীয় কতপিয় দুয়া এবং সগেুলোর র্অথ (বশে কছিু দুয়ার বাংলা উচ্চারণ সহ) প্রদান করা হল। এ দুয়াগুলো আমরা আল্লাহ তায়ালার নকিট মুনাজাত করার সময়, সকাল- সন্ধ্যায় কংিবা অন্য যে কোন সময় পাঠ করতে পার।ি আল্লাহ তায়ালা আমাদরেকে তাওফীক দান করুন। আমীন।

১) رَبَّنَا آتِنَا فِي الدُّنْيَا حَسَنَةً وَفِي الْآخِرَةِ حَسَنَةً وَقِنَا عَذَابَ النَّارِ রাব্বানা আতনিা ফদ্দিুনযি়া হাসানাতাঁও ওয়া ফল্ িআখরিাতি হাসানাতাঁও ওয়াকনিা আযাবান্নার। র্অথঃ “হে আমাদরে পালনর্কতা! আমাদগিকে দুনযি়া ও আখরোতরে কল্যাণ দান কর এবং আমাদরেকে দোযখরে আযাব হতে রক্ষা কর।” (সূরা বাকারা- ২০১)

২) رَبَّنَا لَا تُؤَاخِذْنَا إِنْ نَسِينَا أَوْ أَخْطَأْنَا رَبَّنَا وَلَا تَحْمِلْ عَلَيْنَا إِصْرًا كَمَا حَمَلْتَهُ عَلَى الَّذِينَ مِنْ قَبْلِنَا رَبَّنَا وَلَا تُحَمِّلْنَا مَا لَا طَاقَةَ لَنَا بِهِ وَاعْفُ عَنَّا وَاغْفِرْ لَنَا وَارْحَمْنَا أَنْتَ مَوْلَانَا فَانصُرْنَا عَلَى الْقَوْمِ الْكَافِرِينَ “হে আমাদরে প্রতপিালক! যদি আমাদরে ভ্রম হয় অথবা ত্রুটি হয় তজ্জন্যে আমাদরেকে ধৃত করবনে না, হে আমাদরে পালনর্কতা, আমাদরে র্পূবর্বতীদরে উপর যরেূপ গুরুভার র্অপণ করছেলিনে, আমাদরে উপর তদ্রূপ ভার র্অপণ করবনে না; হে আমাদরে প্রভু, যা আমাদরে শক্তরি অতীত ঐরূপ ভার বহনে আমাদরেকে বাধ্য করবনে না এবং আমাদরেকে ক্ষমা করুন ও আমাদরেকে র্মাজনা করুন এবং আমাদরে উপর দয়া করুন; আপনইি আমাদরে অভভিাবক। অতএব কাফরে সম্প্রদায়রে বরিুদ্ধে আমাদরেকে সাহায্য করুন। (সূরা বাকারা- ২৮৬)

৩) رَبَّنَا هَبْ لَنَا مِنْ أَزْوَاجِنَا وَذُرِّيَّاتِنَا قُرَّةَ أَعْيُنٍ وَاجْعَلْنَا لِلْمُتَّقِينَ إِمَامًا রাব্বানা হাবলানা মনি আযওয়াজনিা ওয়ার্ যুরযি়্যাতনিা কুররাতা আয়ুনন্।ি ওয়াজ্ আলনা ললি মুাত্তাকীনা ইমামা। র্অথঃ “হে আমাদরে পরওয়ারদগোর! আমাদরে স্ত্রীদরে ও সন্তানদরেকে আমাদরে জন্যে চোখরে শীতলতা স্বরূপ করে দাও এবং আমাদরেকে মুত্তাকীদরে জন্যে আর্দশ স্বরূপ করে দাও।” (সূরা ফুরক্বান- ৭৪)

৪) رَبَّنَا ظَلَمْنَا أَنفُسَنَا وَإِنْ لَمْ تَغْفِرْ لَنَا وَتَرْحَمْنَا لَنَكُونَنَّ مِنْ الْخَاسِرِينَ রাব্বানা যালামনা আনফুসানা ওয়া ইল্লাম তাগফরিলানা ওয়া তারহামনা লানা কূনান্না মনিাল খাসরেীন। র্অথঃ “হে আমাদরে প্রভু! আমরা আমাদরে নফসরে উপর যুলুম করছে,ি তুমি যদি আমাদরে ক্ষমা না কর, আমাদরে প্রতি করুণা না কর তবে আমরা ক্ষতগ্রিস্তদরে অর্ন্তভুক্ত হয়ে যাব।” (সূরা আ‘রাফ- ২৩)

৫) رَبَّنَا اصْرِفْ عَنَّا عَذَابَ جَهَنَّمَ إِنَّ عَذَابَهَا كَانَ غَرَامًا إنَّهاَ ساَءَتْ مُسْتَقَرًّ وَمُقاَماً রাব্বানাছরফি ‘আন্না আযাবা জাহান্নামা, ইন্না আযাবাহা কানা গারামা, ইন্নাহা সাআত মুর্স্তাক্বারাও ওয়া মুকামা। র্অথঃ হে আমাদরে রব! আমাদরে থকেে জাহান্নামরে শাস্তি হটযি়ে দাও। নশ্চিয় এর শাস্তি নশ্চিতি বনিাশ। বসবাস ও আবাসস্থল হসিবেে তা কত নকিৃষ্ট জায়গা। (সূরা ফুরক্বান- ৬৫)

৬) رَبَّنَا لَا تُزِغْ قُلُوبَنَا بَعْدَ إِذْ هَدَيْتَنَا وَهَبْ لَنَا مِنْ لَدُنْكَ رَحْمَةً إِنَّكَ أَنْتَ الْوَهَّابُ. রাব্বানা লা তুযগ্ িকুলূবানা বা‘দা ইয হাদায়তানা, ওয়া হাব লানা মনি লাদুনকা রাহমাতান ইন্নাকা আনতাল ওয়াহ্হাব। র্অথ: “হে আমাদরে পালনর্কতা! আমাদরে হদোয়াত দানরে পর আমাদরে হৃদয়কে বক্র করে দওি না। আর তোমার পক্ষ থকেে আমাদরেকে রহমত দান কর। নশ্চিয় তুমইি অধকি দানকারী।” (সূরা আল ইমরান- ৮)

৭) رَبَّنَا اغْفِرْ لَنَا وَلِإِخْوَانِنَا الَّذِينَ سَبَقُونَا بِالْإِيمَانِ وَلَا تَجْعَلْ فِي قُلُوبِنَا غِلًّا لِلَّذِينَ آمَنُوا رَبَّنَا إِنَّكَ رَءُوفٌ رَحِيمٌ “হে আমাদরে প্রতপিালক! আমাদরেকে এবং ঈমানে অগ্রণী আমাদরে ভ্রাতাদরেকে ক্ষমা করুন। আর মুমনিদরে বরিুদ্ধে আমাদরে অন্তরে হংিসা-বদ্বিষে রাখবনে না। হে আমাদরে প্রতপিালক! আপনি তো দয়াদ্র, পরম দয়ালু।” (সূরা হাশর- ১০)

৮) رَبَّناَ زِدْناَ عِلْماً وَألْحِقْناَ بَالصاَّلِحِيْنَ “হে আমাদরে পালনর্কতা! আমাদরে জ্ঞান বৃদ্ধি করে দাও এবং আমাদরেকে নকেকারদরে অর্ন্তভূক্ত কর।”

৯) اللهمَّ إنِّيْ أعُوْذُ بِكَ مِنْ عَذاَبِ جَهَنَّمَ، وَمِنْ عَذاَبِ الْقَبْرِ، وَمِنْ فِتْنَةِ الْمَحْياَ وَالْمَمَاتِ، وَمِنْ فِتْنَةِ الْمَسِيْحِ الدَّجاَّلِ “হে আল্লাহ্! নশ্চিয় আমি তোমার কাছে আশ্রয় র্প্রাথনা করি জাহান্নামরে শাস্তি থকে,ে কবররে আযাব থকে,ে জীবন-মৃত্যুর ফৎিনা থকেে এবং মাসীহ দাজ্জালরে ফৎিনা থকে।ে”

১০) اللهمَّ إنِّيْ أعُوْذُ بِكَ مِنْ الْهَمِّ وَالْحُزْنِ، وأعُوْذُ بِكَ مِنَ الْعَجْزِ وَالْكَسْلِ، وَمِنَ الْبُخْلِ وَالْجُبْنِ، وأعُوْذُ بِكَ مِنْ غَلَبَةِ الدَّيْنِ، وَقَهْرِ الرِّجاَلِ “হে আল্লাহ্! আমি তোমার কাছে আশ্রয় র্প্রাথনা করছি দুশ্চন্তিা ও র্দুভাবনা থকে,ে তোমার কাছে আশ্রয় কামনা করছি অপরাগতা ও অলসতা থকে,ে কাপুরুষতা ও কৃপণতা থকেে এবং আশ্রয় চাচ্ছি ঋণরে বোঝা ও মানুষরে বলপ্রয়োগ থকে।ে ”

১১) اللهمَّ إنِّيْ أعُوْذُ بِكَ أنْ أرَدَّ إلىَ أرْذَلِ الْعُمْرِ. “হে আল্লাহ্! তোমার কাছে আশ্রয় র্প্রাথনা করছি অতবর্িাধক্যে পৌঁছা থকে।ে”

১২) اللهم إنَّا نَسْأَلُكَ خَشْيَتَكَ فِيْ الْغَيْبِ وَالشَّهاَدَةِ، وَنَسْأَلُكَ كَلِمَةَ الْحَقِّ فِيْ الرِّضاَ وَالْغَضَبِ، وَنَسْأَلُكَ الْقَصْدَ فِيْ الْغِنَى وَالْفَقْرِ، وَنَسْأَلُكَ نَعِيْماً لاَ يَنْفَدُ، وَنَسْأَلُكَ قُرَّةَ عَيْنٍ لاَ تَنْقَطِعْ، وَنَسْأَلُكَ الرِّضاَ بَعْدَ الْقَضَاءِ، وَنَسْألُكَ بَرْدَ الْعَيْشِ بَعْدَ الْمَوْتِ، ونسألُكَ لَذَّةَ النَّظَرِ إلى وَجْهِكَ الْكَرِيْمِ، وَالشَّوْقَ إلىَ لِقاَئِكَ، فِيْ غَيْرِ ضَراَّءَ مَضَرَّةٍ وَلاَ فِتْنَةٍ مُضِلَّةٍ “হে আল্লাহ্! গোপনে ও প্রকাশ্যে র্সবাবস্থায় তোমাকে যনে ভয় করতে পার।ি সন্তুষ্টি এবং ক্রোধরে অবস্থায় সত্য কথা বলার তাওফীক চাই। তোমার কাছে কামনা করি অভাব ও প্রার্চুযরে মধ্যপন্থা। তোমার কাছে র্প্রাথনা করি এমন নআেমতরে যা কখনো শষে হবে না, র্প্রাথনা করছি এমন চক্ষু শীতলকারী বষিয় যা বচ্ছিন্ন হবে না। তক্বদীররে উপর সন্তুষ্ট হওয়ার তাওফীক চাই। মৃত্যুর পর সুখী জীবন চাই এবং কামনা করি তোমার সম্মানতি চহোরার প্রতি দৃষ্টপিাত করার আনন্দ, তোমার সক্ষাত লাভরে আর্কষণ যাতে কোন ক্ষতি নইে, নইে কোন বভ্রিান্তকিারী ফৎিনা।”

১৩) اللهم زَيِّناَّ بِزِيْنَةِ الْإيْمَانِ، وَاجْعَلْناَ هُداَةً مُهْتَدِيْنَ “হে আল্লাহ্ আমাদরেকে ঈমানরে সাজে সজ্জতি কর। আর আমাদরেকে কর হদোয়াতকারী যার দ্বারা অন্যরা হদোয়াত লাভ করতে পার।ে”

১৪) اللهم إناَّ نَسْأَلُكَ الْهُدَى وَالتُّقَى وَالْعَفاَفَ وَالْغِنىَ “হে আল্লাহ্! আমরা চাই তোমার কাছে হোদয়াত, তাক্বওয়া, পবত্রিতা ও অভাবমুক্ত।ি”

১৫) اللهم آتِ أنْفُسَناَ تَقْوَاهاَ، وَزَكِّهاَ أنْتَ خَيْرُ مَنْ زَكاَّهاَ، أنْتَ وَلِيُّهاَوَمَوْلاَهاَ “হে আল্লাহ্ আমাদরে আত্মাকে দান কর তাক্বওয়া, তাকে পবত্রি কর। তুমইি তাকে উত্তম পবত্রিকারী। তুমইি তার বন্ধু, অভভিাবক।”

১৬) اللهمَّ فَقِّهْناَ فِيْ الدِّيْنِ “হে আল্লাহ্! আমাদরেকে দ্বীনরে বষিয়ে গভীর জ্ঞান দান কর।”

১৭) اللهمَّ إناَّ نَعُوْذُ بِكَ مِنْ عِلْمٍ لاَ يَنْفَعُ، وَقَلْبٍ لاَ يَخْشَعُ، وَنَفْسٍ لاَ تَشْبَعٍ، وَدَعْوَةٍ لاَ يُسْتَجاَبُ لَهاَ “হে আল্লাহ্! আমরা তোমার কাছে আশ্রয় কামনা করি এমন জ্ঞান থকেে যা কোন উপকার দযে় না, এমন হৃদয় থকেে যা ভীত হয় না, এমন আত্মা থকেে যা পরতিৃপ্ত হয় না এবং এমন দুআ থকেে যা কবুল করা হয় না।”

১৮) اللهمَّ إناَّ نَعُوْذُ بِكَ مِنْ زَوَالِ نِعْمَتِكَ وَتَحَوُّلِ عاَفِيَتِكَ، وَفُجاَءَةِ نِقْمَتِكَ، وَجَمِيْعِ سَخَطِكَ হে আল্লাহ্! তোমার কাছে আশ্রয় কামনা করছ-ি তোমার নআেমতরে সমাপ্তি থকে,ে তোমার ক্ষমা বন্ধ হয়ে যাওয়া থকে,ে তোমার পক্ষ থকেে হঠাৎ শাস্তি আসা থকেে এবং তোমার যাবতীয় ক্রোধ থকে।ে

১৯) اللهمَّ أصْلِحْ لَناَ دِيْنَناَ الذِّيْ هُوَ عِصْمَةُ أمْرِناَ، وَأصْلِحْ لَناَ دُنْياَناَ التِّيْ فِيْهاَ مَعاَشُناَ، وَأصْلِحْ لَناَ آخِرَتَناَ التِّيْ إلَيْهاَ مَعاَدُناَ، وَاجْعَلِ الْحَياَةَ زِياَدَةً لَناَ فِيْ كُلِّ خَيْرٍ، وَاجْعَلِ الْمَوْتَ رَاحَةً لَناَ مِنْ كُلِّ شَرٍّ হে আল্লাহ্! তুমি আমাদরে দ্বীনকে সংশোধন করে দাও যা আমাদরে সকল বষিয়কে রক্ষাকারী। সংশোধন কর আমাদরে দুনযি়াকে যাতে রয়ছেে আমাদরে জীবকিা। সংশোধন কর আমাদরে আখরোত যা আমাদরে শষে ঠকিানা। সবধরণরে কল্যাণে আমাদরে জীবনকে সমৃদ্ধ করে দাও। আর মৃত্যুকে কর সবধরণরে অকল্যাণ থকেে নস্তিার স্বরূপ।

২০) اللهمَّ ألْهِمْناَ رُشْدَناَ وَقِناَ شَرَّ أنْفُسِناَ হে আল্লাহ্! আমাদরেকে সঠকি পথরে তাওফীক দাও এবং আমাদরে বাঁচাও স্বীয় আত্মার অনষ্টি থকে।ে’

২১) اللهمَّ رَحْمَتَكَ نَرْجُوْا، فَلاَ تَكِلْناَ إلىَ أنْفُسِناَ طَرْفَةَ عَيْنٍ، وأصْلِحْ لَناَ شَأْنَناَ كُلَّهُ، لاَ إلَهَ إلاَّ أنْتَ হে আল্লাহ্! তোমার করুণা কামনা কর,ি সুতরাং এক পলকরে জন্য আমাদরেকে নজিরে উপর ছডে়ে দওি না। আমাদরে প্রতটিি বষিয় সংশোধন করে দাও। তুমি ছাড়া প্রকৃত কোন ইলাহ নইে।

২২) اللهم إناَّ نَسْأَلُكَ فِعْلَ الْخَيْراَتِ، وَتَرْكِ الْمُنْكَراَتِ، وَحُبَّ الْمَساَكِيْنَ، وَأنْ تَغْفِرَ لَناَ وَتَرْحَمَناَ، وَإذاَ أرَدْتَ بِعِباَدِكَ فِتْنَةً فَتَوَفِّناَ إلَيْكَ غَيْرَ مَفْتُوْنِيْنَ হে আল্লাহ্! আমরা তোমার কাছে র্প্রাথনা করি ভাল কাজ করা, খারাপ কাজ পরত্যিাগ করা ও মসিকীনদরেকে ভালবাসার তাওফীক। আর তুমি আমাদরেকে ক্ষমা কর ও দয়া কর। তোমার বান্দাদরে যদি ফৎিনায় ফলেতে চাও তবে তা থকেে মুক্তি প্রাপ্তদরে অর্ন্তভূক্ত করে আমাদরে মৃত্যু দাও।

২৩) اللهمَّ نَسْأَلُكَ حُبَّكَ، وَحُبَّ مَنْ يُحِبُّكَ، وَحُبَّ الْعَمَلِ الذِّيْ يُقَرِّبُناَ إلَيْكَ হে আল্লাহ্! তোমার কাছে র্প্রাথনা করি তোমার ভালবাসা, তোমাকে যে ভালবাসে তার ভালবাসা এবং এমন আমলরে প্রতি ভালবাসা যা তোমার নকৈট্য প্রদান করব।ে

২৪) اللهمَّ حَبِّبْ إلَيْناَ الْإيْماَنَ وَزَيِّنْهُ فِيْ قُلُوْبِناَ، وَكَرِّهْ إلَيْناَ الْكُفْرَ وَالْفُسُوْقَ وَالْعِصْياَنَ، وَاجْعَلْناَ مِنَ الرَّاشِدِيْنَ হে আল্লাহ্! ঈমানকে আমাদরে কাছে প্রযি় বস্তু কর, তা আমাদরে অন্তরে সুসজ্জতি কর। আর কুফরী, ফাসকেী এবং নাফারমানীকে আমদরে কাছে ঘৃণতি বষিয় কর।

২৫) اللهمَّ إناَّ نَعُوْذُ بِكَ مِنْ جَهْدِ الْبَلاَءِ، وَدَرْكِ الشَّقاَءِ، وَسُوْءِ الْقَضاَءِ، وَشَماَتَةِ الْأَعْداَءِ “হে আল্লাহ্! আশ্রয় র্প্রাথনা করি অসহনীয় কঠনি বপিদ থকে,ে র্দুভাগ্যবান হওয়া থকে,ে মন্দ ফায়সালা থকেে এবং (আমার বপিদ)ে শত্রুদরে হাঁসা-হাঁসি থকে।ে”

২৬) اللهمَّ اقْسِمْ لَناَ مِنْ خَشْيَتِكَ ماَ تَحُوْلُ بِهِ بَيْنَناَ وَبَيْنَ مَعْصِيَتِكَ، وَمِنْ طاَعَتِكَ ماَ تُبَلِّغُناَ بِهِ جَنَّتَكَ، وَمِنَ الْيَقِيْنِ ماَ تُهَوِّنُ بِهِ عَلَيْناَ مَصاَئِبَ الدُّنْياَ، وَمَتِّعْناَ بِأَسْماَعِناَ وَأَبْصاَرِناَ وَقُوَّاتِناَ ماَ أحْيَيْتَناَ، واَجْعَلْهاَ الواَرِثَ مِناَّ، واَجْعَلْ ثَأْرَناَ عَلىَ مَنْ ظَلَمَناَ، وَانْصُرْناَ عَلىَ مَنْ عاَداَناَ، وَلاَ تَجْعَلِ الدُّنْياَ أَكْبَرَ هَمِّناَ، وَلاَ تَجْعَلْ مُصِيْبَتَناَ فِيْ دِيْنِناَ، وَلاَ تُسِلِّطْ عَلَيْناَ بِذُنُوْبِناَ مَنْ لاَ يَخاَفُكَ وَلاَ يَرْحَمُناَ “হে আল্লাহ্! তোমার ভয় থকেে কছিু অংশ আমাদরে মাঝে বণ্টন করে দাও- যা তোমার নাফারমানী ও আমাদরে মাঝে বাঁধাদানকারী হব।ে তোমার আনুগত্য থকেে এমন কছিু দান কর- যা তোমার জান্নাতে পৌঁছে দবি,ে এমন বশ্বিাস দান কর- যার দ্বারা আমাদরে উপর দুনযি়ার সব ধরণরে বপিদ হালকা অনুভব হব।ে আমাদরেকে যত দনি জীবতিি রাখবে ততদনি আমাদরে কান, চোখ ও শক্তি দ্বারা আমাদরেকে উপকৃত কর এবং আমাদরে মধ্যে থকেে এগুলোর উত্তরাধকিারী বানাও। আমাদরে উপর যারা অত্যাচার করে তাদরে থকেে প্রতশিোধ নাও এবং শত্রুদরে বরিুদ্ধে আমাদরেকে সাহায্য কর। দুনযি়াকে আমাদরে চন্তিা-ফকিরিরে বস্তু বানযি়ে দওি না, দ্বীনী বষিয়ে আমাদরেকে বপিদে ফলেওি না। আমাদরে পাপরে কারণে এমন ব্যক্তকিে আমাদরে র্কতৃত্বকারী করো না যে তোমাকে ভয় করে না এবং আমাদরে উপর দয়া করে না।”

২৭) اللهمَّ إناَّ نَسْأَلُكَ مُوْجِباَتِ رَحْمَتِكَ وَعَزاَئِمَ مَغْفِرَتِكَ، وَالْغَنِيْمَةِ مِنْ كُلِّ بِرٍّ، وَالسَّلاَمَةِ مِنْ كُلِّ شَرٍّ، وَالْفَوْزَ باِلْجَنَّةِ، وَالنَّجاَةَ مِنْ النَّارِ হে আল্লাহ্! আমরা তোমার কাছে র্প্রাথনা কর,ি তোমার রহমতরে আবশ্যকতা, তোমার ক্ষমার দৃঢ়তা, প্রত্যকেটি সৎকাজরে গণীমত, প্রত্যকে অমঙ্গল থকেে নরিাপত্তা, জান্নাতরে বজিয় এবং জাহান্নাম থকেে মুক্ত।ি

২৮) اللهمَّ مُقَلِّبَ الْقُلُوْبِ ثَبِّتْ قُلُوْبَناَ عَلىَ دِيْنِكَ- اللهمَّ مُصَرِّفَ الْقُـلُوْبِ صَرِّفْ قُلُوْبَناَ عَلىَ طاَعَتِكَ র্অথ: “হে অন্তকরণরে পরর্বিতনকারী আল্লাহ্! আমাদরে অন্তরকে তোমার দ্বীনরে উপর অটল অবচিল রাখ। হে হৃদয় সমূহরে পরর্বিতনকারী আল্লাহ্! আমাদরে হৃদয়গুলোকে তোমার আনুগত্যরে দকিে ফরিযি়ে দাও।”

২৯) اللهمَّ أعِنَّا عَلىَ ذِكْرِكَ وَشُكْرِكَ وَحُسْنِ عِباَدَتِكَ হে আল্লাহ্! আমাদরেকে সাহায্য কর তোমার যকিরি করত,ে তোমার কৃতজ্ঞতা করতে এবং সুন্দরভাবে তোমার ইবাদত করত।ে

৩০) اللهمَّ أحْسِنْ عاَقِبَتَناَ فِيْ الأُمُوْرِ كُلِّهاَ، وَأَجِرْناَ مِنْ خِزْيِ الدُّنْياَ وَعَذاَبِ الآخِرَةِ “হে আল্লাহ্! আমাদরে প্রতটিি বষিয়রে শষে পরণিতি সুন্দর কর। আর আমাদরেকে দুনযি়ার লাঞ্ছনা ও আখরোতরে শাস্তি থকেে আশ্রয় দান কর।

৩১) اللهمَّ لاَ تَدَعْ لَناَ ذَنْباً إلاَّ غَفَرْتَهُ، وَلاَ عَيْباً إلاَّ سَتَرْتَهُ، وَلاَ هَمّاً إلاَّ فَرَّجْتَهُ، وَلاَ دَيْناً إلاَّ قَضَيْتَهُ، وَلاَ حاَجَةً مِنْ حَواَئِجِ الدُّنْياَ وَالآخِرَةِ هِيَ لَكَ رَضًى وَلَناَ صَلاَحٌ إلاَّ قَضَيْتَهاَ ياَ أرْحَمَ الرَّاحِمِيْنَ “হে আল্লাহ্! আমাদরে প্রত্যকেটি গুনাহ ক্ষমা করে দাও প্রত্যকেটি ত্রুটি গোপন করে দাও. প্রত্যকেটি দুশ্চন্তিা দূর করে দাও, সব ঋণ পরশিোধ করে দাও। আর দুনযি়া বা আখরোতরে যে কোন প্রয়োজন যাতে তোমার সন্তুষ্টি রয়ছেে ও আমাদরে তাতে কল্যাণ রয়ছেে তা আমাদরে জন্য ফায়সালা করে দাও হে দয়াশীলদরে মধ্যে র্সবাধকি দয়াবান।

৩২) اللهمَّ إناَّ نَسْأَلُكَ مِنَ الْخَيْرِ كُلِّهِ عاَجِلِهِ وَآجِلِهِ، ماَ عَلِمْناَ مِنْهُ وَماَ لَمْ نَعْلَمْ، وَنَعُوْذُ بِكَ مِنَ الشَّرِّ كُلِّهِ عاَجِلِهِ وَآجِلِهِ، ماَ عَلِمْناَ مِنْهُ وَماَ لَمْ نَعْلَمْ আল্লাহুম্মা ইন্না নাসআলুকা মনিাল খাইরে কুল্লহিি আজলেহিি ওয়া আজলিহ্ িমা আলমিনা মনিহু অমা লাম না’লাম। ওয়া নাঊযুবকিা মনিাশ্ শাররি কুল্লহিি আ’জলেহিি ওয়া আজলিহি, মা আলমিনা মনিহু অমা লাম না’লাম। র্অথঃ হে আল্লাহ আমরা আপনার কাছে র্বতমান ও ভবষ্যিতরে যাবতীয় কল্যাণ- যা আমরা জানি এবং জানি না- তা সবই র্প্রাথনা করছ।ি র্বতমান ও ভবষ্যিতরে যাবতীয় অকল্যাণ- যা আমরা জানি এবং জানি না- তার সবগুলো থকেে আশ্রয় র্প্রাথনা করছ।ি

৩৩)اللهمَّ صَلِّ عَلىَ مُحَمَّدٍ وَعَلىَ آلِ مُحَمَّدٍ كَماَ صَلَّيْتَ عَلىَ إبْراَهِيْمَ وَعَلىَ آلِ إبْراَهِيْمَ، إنَّكَ حَمِيْدٌ مَّجِيْدٌ، وَباَرِكْ عَلَى مُحَمَّدٍ وَعَلَى آلِ مُحَمَّدٍ كَماَ باَرَكْتَ عَلىَ إبْراَهِيْمَ وَعَلىَ آلِ إبْراَهِيْمَ، إنَّكَ حَمِيْدٌ مَّجِيْدٌ আল্লাহুম্মা ছাল্লি আ’লা মুহাম্মাদ ওয়া আ’লা আলি মুহাম্মাদ। কামা ছাল্লায়তা আলা ইবরাহীমা ওয়া আলা আলি ইবরাহীমা ইন্নাকা হামীদুম মাজীদ। ওয়া বারকে আলা মুহাম্মাদ ওয়া আ’লা আলি মুহাম্মাদ কামা বারাকতা আলা ইবরাহীমা ওয়া আলা আলি ইবরাহীমা ইন্নাকা হামীদুম মাজীদ।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s