প্রচলিত হরতাল সম্পর্কে ইসলামের চিন্তাধারা কি হতে পারে

প্রচলিত হরতাল সম্পর্কে ইসলামের চিন্তাধারা কি হতে পারে

 হরতালের ইতিহাসের দিকে তাকালে আমরা দেখি, হরতাল একটি গুজরাটি শব্দ। যার অর্থ দোকান-পাট ইত্যাদি বন্ধ করে প্রতিবাদ জানানো। গান্ধী সর্বপ্রথম ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনে হরতাল শব্দের ব্যবহার করেছেন। এতে প্রতিবাদকারীরা স্বেচ্ছায় দোকান-পাট, কর্মক্ষেত্র, আদালত ইত্যাদি বন্ধ রাখত। এভাবে তারা সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাত।

হরতাল যদি তার মূল ব্যবহারে সীমাবদ্ধ থাকে এবং জনগণ স্বেচ্ছায় শান্তিপূর্ণভাবে সবকিছু বন্ধ রেখে প্রতিবাদ জানায়, তাহলে তাতে অনৈসলামিক কোনো কিছু দেখছি না। যদি না, প্রতিবাদের কারণ কোনো ইসলামবিরোধী বিষয় বা জনস্বার্থবিরোধী অত্যাচার না হয়। অর্থাৎ, ইসলামবিরোধী না হলে, বা জুলুম না হলে এমনিতে সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ ইসলাম পছন্দ করে না। বরং একে বাগাওয়াত বা দেশদ্রোহীতার অন্তর্ভুক্ত করে। যার শাস্তি অত্যন্ত কঠিন।

এবার আসা যাক বর্তমান সময়ের হরতালে। এখানে সবচেয়ে বড় বিষয় হলো, হরতালের আগের রাতে এবং খোদ হরতালের দিন সংঘটিত হওয়া নানা বিশৃঙ্খলা। আমরা কয়েক রকম ব্যাপার দেখতে পাই।

১. জনমনে ত্রাস সৃষ্টি: রাসূল স. বলেছেন,

من حمل علينا السلاح فليس منا

যে আমাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র ধরে, সে আমাদের দলভুক্ত নয়। (সহীহ বুখারী: ৬৮৭৪)

অনুরূপভাবে তিনি আরো বলেন,

من أشار إلى أخيه بحديدةٍ ، فإنَّ الملائكةَ تلعَنُه . حتَّى وإن كان أخاه لأبيه وأمِّه

যে ব্যক্তি তার ভাইয়ের (যে কোন মুসলিম) দিকে কোনো লৌহবস্তু তাক করে, ফিরিশতারা তাকে অভিশাপ দেয়। যদিও সে ব্যক্তি তার আপন ভাই হয়। (সহীহ মুসলিম: ২৬১৬)

২. জনগণের সম্পদ বিনষ্ট: রাসূল স: বিদায় হজ্জ্বের ভাষণে স্পষ্ট বলেছেন:

فإن دماءكم وأموالكم وأعراضكم عليكم حرام

তোমাদের রক্ত, সম্পদ ও সম্মান একে অপরের জন্য হারাম। (সহীহ বুখারী: ১৬৫২)

৩. মানুষ হত্যা: এ সম্পর্কে আল-কুরআনের একটি আয়াতই যথেষ্ট।

مَن قَتَلَ نَفْسًا بِغَيْرِ نَفْسٍ أَوْ فَسَادٍ فِي الْأَرْضِ فَكَأَنَّمَا قَتَلَ النَّاسَ جَمِيعًا وَمَنْ أَحْيَاهَا فَكَأَنَّمَا أَحْيَا النَّاسَ جَمِيعًا

যে কেউ প্রাণের বিনিময়ে প্রাণ অথবাপৃথিবীতে অনর্থ সৃষ্টি করা ছাড়া কাউকে হত্যা করে সে যেন সব মানুষকেই হত্যা করে। এবং যে কারও জীবন রক্ষা করে, সে যেন সবার জীবন রক্ষা করে। (সূরা মায়িদাহ: ৩২)

সবমিলিয়ে শুধু নাজায়েজই নয়, ইসলামের দৃষ্টিতে চরম ঘৃণিত ও হাজারো বড় গোনাহের সমষ্টি মনে হয়।

والله أعلم بالصواب.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s